রিলেশন ব্রেকাপ এর পর কিভাবে জীবনকে আবার গুছিয়ে নেবেন, ভাল থাকবেন ।
Share with your friends
  •  
  •  
  •   
  •  

ব্রেকাপ নিয়ে কিছু কথা

হ্যালো কেমন আছেন সবাই? ভাল নিশ্চয়ই
আজকে কিছু কথা মনে হয় শেয়ার করা উচিত-সেটা হলো  রিলেশন ব্রেকাপ হয়ে গেছে , তাকে ভুলতে চাই। ভুলতে পারছিনা -ইত্যাদি ইত্যাদি। আজকে ব্রেকাপ  বিষয়েই কিছু  বলব ।

প্রথমত : ব্রেকাপ হতেই পারে।

দুই টা ভাল মানুষ সারা জীবন এক সাথে থাকবে -এরকম নাও হতে পারে। হতে পারে তাদের আইডোলজি এক না, তাদের চিন্তা ভাবনা গুলি খাপ খাচ্ছেনা
(মিল থাকা আর খাপ খাওয়ানো ভিন্ন জিনিশ)। কিন্তু ব্রেকাপ হলেই -এর দোষ তার দোষ আমার কি ফল্ট এগুলো খুঁজতে বসবেন না। চেষ্টা করুন একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত শুধু মাত্র পার্টনার এর সাথে কথা বলে। মাঝখান এ কোন ফ্রেন্ড, ভাই বোন টানবেন না। এমন কি সমস্যা নিয়ে অই সময়ে কথা ও বলবেন না।

দ্বিতীয়ত : যদি শিওর হোন যে আসলেই ব্রেকাপ সে ক্ষেত্রে দুই দিন একদম চুপ থাকুন।

এই দুই দিন খুব কষ্ট হবে, মাথা কাজ করবেনা, সব কিছু অসহ্য লাগবে কিন্তু একটু চুপ থাকুন। চিন্তা করুন। কেন সে ছেড়ে গেল, কেন এরকম হল -এসব চিন্তা না। চিন্তা করুন -আপনাকে খুব ভালবাসে এরকম কয়টা মানুষে র নাম। বাবা মা ভাই বোন ইয়ার দোস্ত যে কেউ হতে পারে। আপনার সাবেক আপনার মনে উকি দিবে। দিক। মন খারাপ হবে, হোক। কাঁদতে ইচ্ছা করবে, করুক।  প্রিয় মানুষ গুলি র কথা মনে করুন আর ভাবুন আপনি কত টা ইম্পরট্যান্ট তাদের কাছে।

তৃতীয়ত : সাবেক কে ভোলার চেষ্টা করবেন না। মনে করার ও না।

মনে পড়বে। অনেক মন খারাপ লাগবে। কিন্তু মনে পড়লে আপনার স্বাভাবিক কাজে ব্যাস্ত থাকুন। মন কে বাধা দেবেন না প্রেশার দেবেন না। তাকে মনে র ভেতর, সাথে করে নিয়েই ডেইলি কাজ কর্ম করে যান। মনে রাখবেন, টাইম ইজ দ্য বেস্ট হিলার।

চতুর্থত : নিজের জীবনের স্বাভাবিক কাজ বন্ধ রাখবেন না।

মন কেউ দেখবে না। কিন্তু “সময় গেলে সাধন হবে না”।আপনার ভাঙা মন ঠিক হবে কিন্তু একবার লেখা পড়া বা ক্যারিয়ার এ গ্যাপ হলে সাফারিংস নিজের।

পঞ্চমত :এর তার কাছে সাবেক এর নামে আজেবাজে কথা বলবেন না।

যত দিন সম্পর্ক ছিল সেটুকু কে সম্মান দেখিয়ে চুপ থাকুন। এর ফলাফল ভয়াবহ রকম ভাল। এক আপনার পারসোনালিটি ভারী হবে, দুই রেস্পেক্ট বজায় থাকবে।
আপনি নিজেই দেখুন :তাহসান মিথিলা আর শাকিব অপু।
কার প্রতি আপনার রেস্পেক্ট বেশি? কেন বেশি?

লাস্ট পয়েন্ট : আপনার ভাঙা মন, চরম ভালবাসা -পার্টনার এর দরকার নাই । নিজের ক্যারিয়ার নিজের সার্টিফিকেট নিজের ক্যারেকটার নিজের পারসোনালিটি যত ডেভেলপ করবেন তত আপনার নিজের লাভ, তার ভালবাসা বেড়ে যাবার কারন (৭০-৮০%)। না বাড়লেও ক্ষতি নেই। এসব জিনিশ আপনাকে ছেড়ে যাবেনা।
ভাল থাকুন। নিজের জন্য। নিজেকে পসিটিভ করে তুলুন। আশ পাশ এমনি সুন্দর হবে

X
%d bloggers like this: