সুন্দরী ললনাদের লইয়া একখানা জ্ঞানগর্ভ আলোচনা
সুন্দরী ললনা
Share with your friends
  •  
  •  
  •   
  •  

আসুন আরও একবার ঘন হইয়া বসিয়া এই উষ্ণ বঙ্গীয় সমতট অঞ্চলের পাললিক অববাহিকার সুন্দরী ললনাদের লইয়া একখানা জ্ঞানগর্ভ আলোচনা করিয়া লই:

এই বঙ্গীয় মুল্লুকে সুন্দরীদের কোনো প্রকার কমতি নাহি এই যেমন ধরুন আগুন সুন্দরী,ভয়াবহ সুন্দরী,ডানা কাটা পরী, অপ্সরা নানা রকম সুন্দরীদের আনাগোনা আমাদের চারপাশেই বিরাজমান রহিয়াছে।

কিছু সুন্দরী দেখিবেন তাহারা যে সুন্দরী ইহা যদি আপনি প্রকাশ্য দিবালকের ন্যায় তাহার সম্মুখে বারংবার না বলিয়া থাকেন তো তিনি আপনার আপন খালাতো বোন হইলেও আপনার সহিত তিনি খুব একটা বাক্যলাপ করিবেন না।

আরেক পদের সুন্দরী খুঁজিয়া পাইয়াছি যাহারা আবার বেশ কূটনৈতিক কায়দায় তাহারা যে সুন্দরী তাহা প্রকাশ করিয়া থাকেন। কূটনীতিকরা যেমন করিয়া ধরি মাছ না ছুঁই পানি এই রকম করিয়া বক্তব্য দিয়া থাকেন তেমনি করিয়া ওই সুন্দরীরাও তাহারা যে সুন্দরী ইহা আপনি তাহার সম্মুখে বলিলে তিনি উত্তরে বলিবেন,কি যে বলেন ভাইয়া।

আরেক প্রকার সুন্দরী রহিয়াছেন যাহাদের আপনি আগুন সুন্দরী বলিয়া আখ্যা দিয়া দিতে পাড়িবেন। ইহারা গণ পরিবহনের প্রথম দিককার আসনগুলা চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত প্রথার ন্যায় ভোগ দখল করিয়া পায়ের উপর পা তুলিয়া চোখে কালো সানগ্লাস লাগাইয়া বসিবেন। তাহার পাশে কোন যাত্রী বসিলে তাহার শরীরের সহিত তাহার যাতে কোনো প্রকার স্পর্শ কেন টোকাও লাগে না এইরূপ করিয়া বসিবেন। ইহারা ভাবিয়া থাকেন বাসের অন্য সকল যাত্রী তাহার দিকে তীর্থের কাকের ন্যায় তাকাইয়া থাকেন। ইহাদের সহিত বাসের হেলপার কিংবা কন্ডাক্টরের বেশ সখ্যতা দেখিবেন। হেলপার আমাকে আপনাকে সিট খালি,রড খালি বলিয়া মুরগি যেইরূপ খাঁচায় ভরা হইয়া থাকে এইরূপ করিয়া তুলিবেন আর এই সকল আগুন সুন্দরীদের তাহারা আপা বলিয়া সম্বোধন করিয়া বাস থামাইয়া তুলিবেন এবং তাহার জন্য অন্য কোন এক পুরুষ যাত্রীকে আসন হইতে উঠাইয়া দিয়া তাহাকে বসাইয়া দিবেন এবং নামিবার সময় গলা সপ্ত আসমানে উঠাইয়া ড্রাইভারকে বলিবেন ওস্তাদ আপা নামিবেন গাড়ি স্লো করিয়া দিবেন। আর আমাদিগনের নামার সময় হইলে পাড়িলেতো একশো মাইল গতি থাকিবা সত্ত্বেও বাস হইতে ছুরিয়া ফেলিয়া নামাইয়া দিয়া থাকেন। এমনকি আগুন সুন্দরী যদি একখানা একহাজার টাকার নোট মাত্র দশ টাকা ভাড়ার জন্যও প্রদান করিয়া থাকেন তো তাহাও হাসি মুখে তাহাকে টাকা ভাঙাইয়া ভাড়া লইবেন। আর আমি আপনি একশো টাকার নোট দিলেও বলিবেন খুচরা টাকা লইয়া বাসে উঠিতে পারেন না।

আরেক প্রকার সুন্দরীর দেখা পাইবেন আপিসে। উহারা প্রতি ত্রিশ মিনিটে দুই বার ওয়াস রুমে যাইবেন তাহাদের চুল ঠিক করিবার জন্য নচেৎ তাহার ঠোঁটের লিপিস্টিক ঠিক করিবার জন্য। অথচ আমি আপনি আপিসে ঢুকিয়া সকালে যে আসিবার পূর্বে ওয়াশ রুমে যাইয়া পেট খালি করিবার সময় পাই নাহি তাহা যে এখন পেটের মধ্যে মোচড় মাড়িতেছে ঘন ঘন তাহা সত্যেও গত চার ঘন্টায় একবারের জন্যেও ওয়াশ রুমে যাইতে পাড়িবেন না। বৎসর শেষে দেখিবেন আমি আপনি কলুর বলদ পদন্নোতি না পাইলেও তাহারা সুপারসনিক জেট বিমানের ন্যায় পদোন্নতি পাইয়া গিয়াছেন। আরোও কষ্টের বিষয় হইলো পরেরদিন যখন দেখিবেন তিনি রিলিফের মালের ন্যায় রসগোল্লা বিতরণ করিতেছেন সকলকে তাহার পদোন্নতির জন্য তখন রসগোল্লার রস আপনার নিকট হেমলক নামক বিষের ন্যায় লাগিবে। কিছুক্ষণ পর ওই সুন্দরী আসিয়া বলিবেন যদু ভাই রসগোল্লা কেমন লাগিল। আপনি রাগ সংবরণ করিয়া মনে মনে বলিবেন ধরণী তুমি ফাক হও আমি জীবন্ত ইহার মধ্যে ঢুকিয়া মরিয়া যাইবো।

আসুন এইবার বিপনী বিতানে কি অবস্থা তাহা জানিয়া লই। কোনও সুন্দরী যদি দোকানে যাইয়া থাকেন তো দেখিবেন দোকানের সকল বিক্রয়কর্মী তাহার সেবায় নিয়োজিত হইয়া যাইবেন। আপা কি লাগিবে একবার শুধু বলেন। ওই সময় যদি আপনি দোকানে প্রবেশ করেন তো ধরিয়া রাখুন আগামী ত্রিশ মিনিটেও বিক্রয়কর্মী আপনাকে সময় দিবেন না ,বলিবে আরে ভাই ধৈর্য ধরেন পাগল হইয়া যাইতেছেন কেন,দেখিতে পাইতেছেন না অপার কেনাকাটা এখনো শেষ হয় নাই।

বিদ্র: সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ এই লিখাকে কেহ নারী বিদ্বেষী লিখা ভাবিয়া ভুল করিবেন না। এই অধম এক সুন্দরীর সহিত সাড়ে পাঁচ বৎসর দৌড়াদৌড়ি করিয়া গত তিন বৎসর যাবৎ বিবাহ করিয়া সুখে শান্তিতে সংসার করিতেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

X
%d bloggers like this: